নিউইয়র্ক সিটি ডেমোক্রেটিক প্রাইমারীতে বিচারক পদে জনসন ও ডোশি প্রার্থী

বাংলা পত্রিকা রিপোর্ট
প্রকাশিত: ১৯ মে ২০২৪, ১৮:০৫
...
নিউইয়র্ক সিটি ডেমোক্রেটিক প্রাইমারীতে বাংলাদেশীদের ঘনিষ্ট দুই প্রার্থী এবার বিচারক পদে লড়ছেন। এরমধ্যে রয়েছেন বর্তমান নিউ ইয়র্ক স্টেট সুপ্রীম কোর্ট জাজ কাসান্দ্রা জনসন ও সিভিল কোর্ট জাজ পদে সাউথ এশিয়ান প্রার্থী আমিশ আর ডোশি। আগামী ২৫ জুন অনুষ্ঠিত হবে এই প্রাইমারী। এতে বর্তমান সুপ্রীম কোর্ট জাজ কাসান্দ্রা জনসন সারোগেট জাজ এবং আমিশ ডোশি সিভিল কোর্ট জাজ পদে লড়ছেন।

গত ১৪ মে মঙ্গলবার কাসান্দ্রা জনসন ও আমিশ ডোশির সমর্থনে এক ফান্ড রেইজিং অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে বাংলাদেশী সহ সাউথ এশিয়ান বিভিন্ন কমিউনিটির পেশাজীবিরা যোগদান করে দুই প্রার্থীর প্রতি তাদের সমর্থন জানান। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিশিষ্ট নির্বাচনী আইন বিষয়ক এটর্নী আলী নাজমী।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন এটর্নী গেহী, সুপ্রীম কোর্ট জাজ কাসান্দ্রা জনসন, আমিশ ডোসি সহ আরো অনেকে।

অনুষ্ঠানে আমিষ ডোশিকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বক্তারা বলেন, একজন খ্যতিমান আইনজীবি হিসেবে আমিশ ইতোমধ্যেই তার বিশ্বস্ততা ও গ্রহণযোগ্যতাকে প্রমাণ করেছেন। এখন সময় এসেছে সাউথ এশিয়ানদের ক্ষমতায়নের। এক্ষেত্রে আমিশ ডোশি আমাদের যোগ্য প্রতিনিধিত্ব করতে পারবেন।
অনুষ্ঠানে আমিশ ডোশি বলেন, আমি নিজেই নিজের অবস্থান তৈরী করেছি। কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে আমাকে আসতে হয়েছে আজকের অবস্থানে। এই অবস্থায় ২৫ জুন অনুষ্ঠিতব্য প্রাইমারী নির্বাচনে তাকে বিজয়ী করার জন্য তিনি সকলের প্রতি অনুরোধ জানান।

সুপ্রীম কোর্ট বিচারপতি কাসান্দ্রা জনসন বলেন, সারোগেট বিচারক হিসেবে আমি কমিউনিটিকে অনেক বেশী সাহায্য করতে পারবো। দিনে দিনে বাংলাদেশী কমিউনিটি বড় হচ্ছে। এক্ষেত্রে তাদের স্থাবর অস্থাবর সম্পদ সত্যিকার প্রতিনিধিদের হাতে তুলে দেয়ার কাজটি আরো নিষ্ঠার সাথে আমি করতে চাই।

এটর্নী আলী নাজমী আগামী ২৫ জুনের ভোটে দক্ষিণ এশিয়দের দলমত ভুলে আমিশ ডোশি ও কাসান্দাকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানান। উল্লেখ্য, কুইন্স ডেমোক্রেটিক পার্টি ইতোমধ্যেই উপরোক্ত দুই প্রার্থীকে সমর্থন দিয়েছে।

সর্বশেষ