ফ্লোরিডায় পুলিশের গুলিতে কৃষ্ণাঙ্গ বিমান সেনা নিহত

বাংলা পত্রিকা ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০ মে ২০২৪, ১৬:০৫
...

ফ্লোরিডায় ফোর্টসনের অ্যাপার্টমেন্টেই তাকে গুলি করা হয়। তিনি ফোর্টসন হলবার্ট ফিল্ডের স্পেশাল অপারশন্স উইংয়ে দায়িত্বরত ছিলেন। যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা পুলিশ বৃহস্পতিবার একটি বডি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, দেশটির বিমান বাহিনীর একজন সদস্যকে তারই বাড়িতে গুলি করছেন একজন ডেপুটি শেরিফ।

বিবিসি জানায়, গত ৩ মে গুলির ওই ঘটনা ঘটে। যাতে নিহত হন ২৩ বছর বয়সী জ্যেষ্ঠ বিমানসেনা রজার ফোর্টসন। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ফোর্টসনকে হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে তার মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ফোর্টসনের পরিবারের পক্ষের একজন আইনজীবী একজন প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে বৃহস্পতিবার বলেছেন, পুলিশ ভুল বাড়িতে অভিযান চালিয়েছিল।

যা অস্বীকার করে পুলিশ বলেছে, তাদের ডেপুটি শেরিফ আত্মরক্ষার খাতিরে গুলি চালিয়েছে। ফোর্টসনের কাছে একটি বন্দুক ছিল এবং পুলিশ দেখে তিনি সেটি বের করেছিলেন।

ফ্লোরিডায় ফোর্টসনের অ্যাপার্টমেন্টে এ ঘটনা ঘটে। তার অ্যাপার্টমন্টে কমপ্লেক্স হলবার্ট ফিল্ড বিমানঘাঁটি থেকে ৮ কিলোমিটার দূরে। ফোর্টসন হলবার্ট ফিল্ডের স্পেশাল অপারশন্স উইংয়ে দায়িত্বরত ছিলেন। ২০১৯ সালের নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের বিমান বাহিনীতে যোগ দেন তিনি।

যে ডেপুটি শেরিফ তাকে গুলি করেছেন তার নাম প্রকাশ করা হয়নি। ওই ঘটনার পর থেকে তাকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়ে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে।
ওকালুসা কাউন্টি শেরিফ এরিক অ্যাডেন বলেন, ফ্লোরিডা ডিপার্টমেন্ট অব ল এনফোর্সমেন্ট এবং স্টেট অ্যাটর্নির কার্যালয় থেকে ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।
তিনি তদন্ত কাজ ‘স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহিতার’ সঙ্গে করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেছেন, “তদন্ত করতে সময় লাগবে।


“তবে আমি আপনাদের এই নিশ্চিয়তা দিচ্ছি যে, আমরা কিছু লুকাবো না, আড়াল করবো না, অথবা এমন কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করবো না যার ফলে ফোর্টসন বা আমার ডেপুটির বিচারে তাড়াহুড়ো করা হতে পারে।”

পুলিশের বডি ক্যামেরার যে ভিডিওটি প্রকাশ করা হয়েছে সেটি চার মিনিটের এবং ডেপুটি শেরিফের পোশাকের সঙ্গেই সেটি সংযুক্ত ছিল।

ভিডিওতে দেখা যায়, পুলিশ ফোর্টসনের অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সে এসেছে এবং একজন প্রত্যক্ষদর্শী তাদের লিফট দেখিয়ে দিচ্ছেন। যিনি পরে একটি অ্যাপার্টমন্ট থেকে গুলির শব্দ শোনার কথা জানিয়েছেন।

ভিডিওতে ওই ডেপুটি শেরিফকে ফোর্টসনের অ্যাপার্টমেন্টের সদর দরজা সমানে দেখা যায়। তিনি দরজায় ‘নক’ করেন এবং দুইবার চিৎকার করে বলেন, তিনি শেরিফের অফিস থেকে এসেছেন।

তারপর ফোর্টসনকে দরজা খুলতে দেখা যায়। তার ডান হাতে একটি বন্দুক তাক করা। সেটা দেখে সঙ্গে সঙ্গে ডেপুটি শেরিফকে কয়েকবার গুলি ছুড়তে দেখা যায় এবং বন্দুক ফেলে দিতে বলতে শোনা যায়।মেঝেতে পড়ে যাওয়ার সময় ফোর্টসনকে বলতে শোনা যায়, “এটা ওখানে। এটা আমার কাছে নেই।”

সর্বশেষ

সর্বশেষ