নাইন ইলেভেনের ভয়াল স্মৃতি স্মরণ


প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৩:০৯
...

নাইন ইলেভেনের সেই ভয়াল স্মৃতি স্মরণ করলো নিউইয়র্কবাসী তথা গোটা যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে ভয়াবহতম সন্ত্রাসী হামলার সেই দিনটির ২২ বছর পুর্তিতে জাতি স্মরণ করলো হারিয়ে যাওয়া মানুষগুলোকে।২০১১ সালের ১১ সেপ্টেম্বরের সেই টুইন টাওয়ার অ্যাটাকে ২,৯৭৭ জন মানুষের মৃত্যু হয়। পরের সেই ঘটনার শিকার হয়ে অসুস্থতায় ঘটা মৃত্যু নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছিলো প্রায় ৫০০০ জন।

হাজার হাজার মানুষ এখনো তাদের জখমের সাথে যুদ্ধ করে যাচ্ছেন আর বয়ে বেড়াচ্ছেন ভয়াল স্মৃতির দগদগে ঘা। সেই হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের পরিবার পরিজন এখন এই দিনটিতে এসে জড়ো হন ৯/১১ মেমোরিয়ালের সামনে। নিউইয়র্ক সিটির লোয়ার ম্যানহাটানে এবারের দৃশ্যটিও ব্যতিক্রম কিছু ছিলো না। সেখানে আজও উচ্চারিত হয় হারিয়ে যাওয়া সেই মানুষগুলোর নাম। আর ফুলে ফুলে ভরিয়ে তোলা হয় স্মৃতিস্তম্ভ।

শিশু-কিশোর আবাল বৃদ্ধা বনিতা সকলের ভীর জমে এই স্মৃতি সৌধের কাছে। স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধরা এসেছিলেন তাদের শ্রদ্ধা জানাতে। তাদের মধ্যে ছিলেন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস, নিউইয়র্কের গভর্নর ক্যাথি হোকুল ও গভর্নর ফিল মারফি, সেনেটর চাক শুমার ও ক্রিস্টেন গিলিব্র্যান্ড, মেয়র এরিক অ্যাডামস, সাবেক মেয়র বিল ডি ব্লাজিও, সাবেক মেয়র ও ৯/১১ এর মেমোরিয়ালের চেয়ারম্যান মাইকেল ব্লুমবার্গ, সাবেক মেয়র রুডি জুলিয়ানি ও ফ্লোরিয়ার গভর্নর রন ডিস্যান্টিস।

এদিন সকাল থেকে ছয় বার মোমেন্ট অব সাইলেন্স পালন করা হয়। প্রথম ৮টা ৪৬ মিনিটে যাখন অ্যামেরিকান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট ১১ টুইন টাওয়ার নর্থটাওয়ারটিতে আঘাত হেনেছিলো। পরের নিরবতা পালন করা হয় সকাল ৯.০৩ মিনিটে। ঠিক এই সময়ে সাউথ টাওয়ারে আঘাত হানে ইউনাইটেড এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট ১৭৫। ৯ টা ৩৭ মিনিটে তৃতীয় নিরবতা কর্মসূচি পালিত হয় যে সময়টিতে ফ্লাইট ৭৭ আঘাত হেনেছিলো পেন্টাগনে। ৯ টা ৫৯ মিনিটে মোমেন্ট অব সাইলেন্স পালন করা হয় ঠিক যখন সাউথ টাওয়ার পুরোপুরি ধসে পড়ে, ১০ টা ৩ মিনিটের নিরবতা পালন ছিলো পেনসিলভানিয়ার শ্যাঙ্কসভিলে ইউনাইটেড এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট ৯৩ বিধ্বস্ত হওয়ার সময়টিতে। আর ১০টা ২৮ মিনিটে নিরবতা পালন হয় ঠিক যে সময়টিতে ধসে পড়েছিলো টুইন টাওয়ারের নর্থ টাওয়ার।

সর্বশেষ

সর্বশেষ