দুবাইয়ে নতুন ঘটনার জন্ম দিলেন সাকিব


প্রকাশিত: ১৬ মার্চ ২০২৩, ১১:০৩
...
দুবাই সফরে গিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছেন সাকিব আল হাসান। জানা গেছে, এক ফেরারি আসামির জুয়েলারি প্রতিষ্ঠান উদ্বোধন করতে মরুর দেশটিতে গেছেন টাইগার অধিনায়ক। তবে সেই অনুষ্ঠানের মঞ্চে না উঠে এবার নতুন ঘটনার জন্ম দিলেন সাকিব।

বুধবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে আরাভ জুয়েলার্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন সাকিব। জানা যায়, স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে একটি রেঞ্জ রোভার গাড়িতে চড়ে দুবাইয়ের দেরা বাজারে আসেন তিনি। তার সঙ্গে একই গাড়িতে ছিলেন প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী আরাভ খান। এর আগে অনুষ্ঠানে যোগ দেন উপস্থাপক দেবাশীষ বিশ্বাস, সঙ্গীত শিল্পী বেলাল খানসহ প্রমুখ। স্থানীয় সময় বিকাল ৫টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটির উদ্বোধনী আয়োজন শুরু হয়। তবে অনুষ্ঠানের মঞ্চে না উঠে ১০ মিনিটের মধ্যেই স্থান ত্যাগ করেন তিনি। এসময় বিতর্কের বিষয়ে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে তা এড়িয়ে যান বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

অনুষ্ঠানের শুরুতে আরব সঙ্গীত পরিবেশনসহ বিভিন্ন দেশের সাংস্কৃতিক পরিবেশনা নিয়ে হাজির হন বিদেশি শিল্পীরা। দেবাশীষ বিশ্বাসের উপস্থাপনায় মঞ্চে উঠে সংগীত পরিবেশন করেন বাংলাদেশের আলোচিত অভিনেতা হিরো আলম, আরেফিন আকাশ, বঙ্গ শিমুল ও জাবেদ সরওয়ার।অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্য চিত্রনায়িকা দীঘি দুবাইয়ে গেলেও তাকে দেখা যায়নি।

জানা গেছে, পুলিশের পরিদর্শক পদপর্যাদার এক সদস্য হত্যা মামলার পলাতক আসামি আরাভ খান। তিনি মূলত গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার আশুতিয়া গ্রামের রবিউল ইসলাম ওরফে আপন ওরফে সোহাগ ওরফে হৃদয়। পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক মো: মামুন ইমরান খান হত্যা মামলার ৬ নম্বর আসামি তিনি। রবিউল ভারতে গিয়ে বিয়ে করে সেদেশের নাগরিকত্ব নেন। নাম পাল্টে রাখেন আরাভ খান।

দুবাইয়ের আরাভ খানই পুলিশ পরিদর্শক মামুন হত্যার পলাতক আসামি বলে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের মতিঝিল বিভাগ নিশ্চিত করেছে। ডিবি জানায়, পুলিশের জমা দেয়া অভিযোগপত্রেও আরাভ খানকে পলাতক আসামি দেখানো হয়েছে।

সর্বশেষ