যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় আজ মুক্তি পাচ্ছে ‘শনিবার বিকেল’


প্রকাশিত: ১০ মার্চ ২০২৩, ১৭:০৩
...
অবশেষে আজ মুক্তি পাচ্ছে সিনেমা শনিবার বিকেল। তবে দেশের নয়, সিনেমাটি কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রের সিনেমা হলে দর্শকেরা দেখতে পারবেন। সিনেমাটির পরিচালক জানান, প্রাথমিকভাবে ছবিটি দুই দেশের ৬৯টি সিনেমা হলে মুক্তি পাচ্ছে। পর্যায়ক্রমে দুই দেশের বিভিন্ন প্রদেশে হলসংখ্যা আরও বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে প্রায় চার বছর ধরে শনিবার বিকেল আটকে আছে। এর মধ্যেই বিদেশে সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে।

মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর সিনেমা মুক্তি নিয়ে দেশে সব সময় উৎসবমুখর পরিবেশ থাকলেও এবার ব্যতিক্রম। এবারই প্রথম ফারুকীর কোনো সিনেমা দেশের আগেই বিদেশে বাণিজ্যিকভাবে বিদেশে মুক্তি পাচ্ছে। সেন্সরে আটকে থাকা সিনেমাটি নিয়ে অপেক্ষা না করে কেন মনে হলো সিনেমাটি আন্তর্জাতিক বাজারে মুক্তি দেওয়া দরকার? এমন প্রশ্নে ফারুকী বলেন, ‘আমার প্রথম উদ্দেশ্য ছিল, ছবিটা মানুষ সিনেমা হলে দেখুক। এ জন্য দীর্ঘদিন অপেক্ষা করেছি। সবাই জানি, আমার এই সিনেমার সেন্সর নিয়ে কী রকম সার্কাস হয়েছে এবং এখনো হচ্ছে। শেষবার যখন আপিল কমিটি থেকে বলা হলো, শনিবার বিকেল মুক্তিতে বাধা নেই, তখন আমরা দেশে এবং উত্তর আমেরিকায় মুক্তির ব্যাপারে প্রস্তুতি নিতে থাকি। এর মধ্যে তথ্য মন্ত্রণালয় নজিরবিহীন ইউটার্ন নেয়। তখন আমরা সিদ্ধান্ত নিই, উত্তর আমেরিকায় মুক্তির পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার।’

সিনেমাটির মুক্তি উপলক্ষে ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার প্রবাসী দর্শকদের আগ্রহ লক্ষ করা গেছে। শুরু হয়েছে অগ্রিম টিকিট বিক্রি। জানা যায়, বেশ কিছু সিনেমা হলে অগ্রিম টিকিট শেষ পর্যায়ে। শুধু তা–ই নয়, বিভিন্ন শপিং মল, বাঙালি কমিউনিটি, নিউইয়র্ক, জ্যামাইকা, টরন্টো শহরে দেখা যাচ্ছে শনিবার বিকেল–এর পোস্টার। প্রবাসি বাঙালিরা সিনেমাটি নিয়ে কথা বলছেন। ফারুকী বলেন, ‘শনিবার বিকেল আমার ও আমাদের টিমের কাছে একটা আবেগের নাম। আমাদের অন্যায়ভাবে আটকে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে, স্তব্ধ করে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে, আমরা বাধার পাহাড় ডিঙিয়ে আজ এইখানে!’

ছবিটির মুক্তি উপলক্ষে ৯ মার্চ সকালে যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছেছেন পরিচালক। চমক হিসেবে নিউইয়র্কের জ্যামাইকা মাল্টিপ্লেক্সে আজ ও আগামীকাল শনিবার ফারুকী ও অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা উপস্থিত থাকবেন। তাঁরা ভক্তদের সঙ্গে প্রশ্ন-উত্তর পর্বে অংশ নেবেন। পর্যায়ক্রমে দুই দেশের বড় সিনেমাহলগুলোয়ও যাবেন তাঁরা।

গত ২১ জানুয়ারি সিনেমাটি দেখেছে সেন্সর বোর্ডের আপিল কমিটি। আপিল কমিটির সদস্যদের বরাতে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবরে আসে, সিনেমাটি মুক্তিতে আর কোনো বাধা নেই। তবে তার দুই সপ্তাহের মাথায় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানকে জানানো হয়, এখনই সেন্সর ছাড়পত্র পাচ্ছে না সিনেমাটি, ছবিটি আবার দেখবে আপিল কমিটি। কার্যত পেন্ডুলামের মতো সিনেমাটির ভাগ্য ঝুলে রয়েছে। তবে বাংলাদেশে মুক্তি না পেলেও থেমে থাকবে না শনিবার বিকেল–এর যাত্রা। পর্যায়ক্রমে ভারত, সিঙ্গাপুর, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য, সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ একাধিক দেশে সিনেমাটি মুক্তি পাবে। রিলায়েন্স এন্টারটেইনমেন্টের মাধ্যমে সিনেমাটি আন্তর্জাতিক বাজারে মুক্তি দিচ্ছে সিঙ্গাপুরভিত্তিক পরিবেশনা প্রতিষ্ঠান কনটিনেন্টাল এন্টারটেইনমেন্ট প্রাইভেট লিমিটেড।

সর্বশেষ