প্রবাসীদের জন্য সবচেয়ে বসবাসযোগ্য শহর স্পেনের ভ্যালেন্সিয়া


প্রকাশিত: ১ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:১২
...

প্রবাসীদের জন্য সবচেয়ে বসবাসযোগ্য শহর স্পেনের ভ্যালেন্সিয়া। শুধু তা-ই নয়, জীবনযাপনের মানের দিক থেকেও শহরটির অবস্থান শীর্ষস্থানীয়। বিশ্বের প্রবাসীদের আন্তর্জাতিক সংগঠন ইন্টারন্যাশনস প্রকাশিত নতুন এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য পাওয়া গেছে। তালিকায় প্রবাসীদের জন্য সবচেয়ে খারাপ শহর হিসেবে শীর্ষ স্থানে রয়েছে জোহানেসবার্গ।

বিশ্বে প্রবাসীদের জন্য সবচেয়ে ভালো ও সবচেয়ে খারাপ বিবেচনায় মোট ৫০টি শহরের তালিকা প্রকাশ করেছে সংগঠনটি। তালিকায় ওপরের দিকে থাকা শহরগুলো প্রবাসীদের বসবাসের জন্য সবচেয়ে ভালো। আর নিচের দিকের দেশগুলো সবচেয়ে খারাপ। গত বছর কোন শহরগুলোতে থেকে এবং কাজ করে প্রবাসীরা আনন্দ বোধ করেছেন নয়তো অখুশি হয়েছেন, তা এ তালিকার মধ্য দিয়ে প্রতিফলিত হয়েছে।  

ইন্টারন্যাশনস ৫০টি শহরের ১১ হাজার ৯৭০ জন প্রবাসীর ওপর জরিপটি চালিয়েছে। জীবনযাপনের মান, বসবাসপদ্ধতি সহজ, বিদেশে কাজ করা, ব্যক্তিগত অর্থায়ন এবং প্রবাসীদের অপরিহার্যতার একটি সূচকের ভিত্তিতে প্রবাসীদের বিভিন্ন প্রশ্ন করা হয়েছে।ভ্যালেন্সিয়ায় বসবাসকারী প্রবাসীরা বলেছেন, শহরটিতে গণপরিবহন সাশ্রয়ী, সেখানে বিনোদনমূলক খেলাধুলার ব্যবস্থা আছে, নিরাপত্তা আছে। প্রবাসীরা আরও বলেছেন, শহরটিতে থাকতে গিয়ে তাঁদের নিজ দেশে থাকার মতো অনুভূতি তৈরি হয়। ভ্যালেন্সিয়ায় সামাজিক জীবন নিয়ে তাঁরা সুখী।

প্রবাসীদের জন্য সেরা ২০ শহর
স্পেনের ভ্যালেন্সিয়া (১), আরব আমিরাতের দুবাই (২), মেক্সিকোর মেক্সিকো সিটি (৩), পর্তুগালের লিসবন (৪), স্পেনের মাদ্রিদ (৫), থাইল্যান্ডের ব্যাংকক (৬), সুইজারল্যান্ডের বাসেল (৭), অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন (৮), আরব আমিরাতের আবুধাবি (৯), সিঙ্গাপুর (১০), এস্তোনিয়ার তালিন (১১), যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামি (১২), অস্ট্রেলিয়ার সিডনি (১৩), স্পেনের বার্সেলোনা (১৪), কেনিয়ার নাইরোবি (১৫), যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটি (১৬), ডেনমার্কের কোপেনহেগেন (১৭), সুইজারল্যান্ডের লুসান (১৮), কানাডার টরন্টো (১৯), সুইজারল্যান্ডের জুরিখ (২০)।

প্রবাসীদের জন্য সবচেয়ে ১০ বাজে শহর
৫০ শহরের তালিকায় নিচের দিকে যেগুলোর নাম রয়েছে সেগুলো বসবাসযোগ্যতার দিক থেকে প্রবাসীদের জন্য সবচেয়ে বাজে বলে বিবেচিত। এগুলো হলো দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গ (৫০), জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্ট (৪৯), ফ্রান্সের প্যারিস (৪৮), তুরস্কের ইস্তাম্বুল (৪৭), হংকং (৪৬), জার্মানির হামবুর্গ (৪৫), ইতালির মিলান (৪৪), কানাডার ভ্যানক্যুভার (৪৩), জাপানের টোকিও (৪২) ও ইতালির রোম (৪১)।

তথ্যসূত্র: ফোর্বস, দ্য ন্যাশনাল

সর্বশেষ

সর্বশেষ